আইফোন কে কি তাহলে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে নাথিং ফোন বাজারে এসেছে? | কি আছে নাথিংফোন ১ এ

আইফোন কে টিক্কা দেওয়ার চ্যালেঞ্জ নিয়ে বাজারে এসেছে নতুন স্মার্টফোন। নামটাও কেমন জানি অদ্ভুত চমকে দেওয়ার মতো।নাথিং ফোন

ব্যাটারি মাদারবোর্ড সহ ফোনের সব যন্ত্রাংশ বাইরে থেকেই দেখা যাবে।

চমৎকার লুকের ফোনটির ডিসপ্লে থেকে ক্যামেরা সবখানেই রয়েছে যেন নতুন অভিণত্বের ছোয়া।

এবং ফোনটির পিছনে রয়েছে বিশেষ ধরনের এলইডি প্যানেল,
যাকে ফোনটির কোম্পানি থেকে নামকরণ করে দেয়া হয়েছে গিলিপ ইন্টারফেস।

কল নোটিফিকেশনের পাশাপাশি ব্যাটারি চার্জ আর ছবি তোলার সময়ও কাজে আসবে এই প্যানেল টি যেটা একদম নতুনত্ব।ট্রান্সপারেন্ট ব্যাক ডিজাইন এর সাথে এমন লাইটিং আগে কখনো কোন স্মার্টফোনে দেখেনি কেউ।

নাথিং ফোনের পিছনে দেয়া হয়েছে ৫০ মেগাপিক্সেলের দুটি ক্যামেরা সেন্সর।

মেইন ক্যামেরাটিতে আছে সনির আইএমএক্স ৭৬৬ সেন্সর।আর ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ছবি তুলতে আছে সেকেন্ডারি ক্যামেরা।

ফোনের সামনে দেয়া হয়েছে ১২০ হার্স রিফ্রেশ রেট এর ও এলইডি ডিসপ্লে। যার সুরক্ষা দিতে প্রস্তুত কর্নিং গরিলা গ্লাস ফাইভ।ফোনটির মিড রেঞ্জের চিপসেট হতাশ করতে পারে যারা হার্ট কোর গেমিং করে থাকেন।

ফোনটি রান করবে এন্ড্রয়েড ১২ ভিত্তিক নাথিং ও এস এ। আর সেইসঙ্গে ব্যবহারকারীরা পাবেন স্টক এন্ড্রয়েড এর অভিজ্ঞতা।

পরিচ্ছন্ন ও সহজ ইন্টারফেসের এই ফোনে নেই কোনো বোলোট ওয়ার্ড।


তিন বছরের ওপরেটিং সিস্টেম আপডেট ও চার বছরের নিরাপত্তা আপডেটের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে এই ফোনের নির্মাতা প্রতিষ্ঠান।

বাজারে থাকা আর সকল ফ্লাক্সিপ স্মার্টফোনের মত রয়েছে ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার সুবিধা।

ফোনটিতে পাওয়ার করবে সাড়ে চার হাজার এম্পিয়ারের একটি ব্যাটারি। এবং সেইসঙ্গে ফোনটির ফুল চার্জ হতে সময় নিবে প্রায় ৭০ মিনিট।

ও একটা হতা সাজানো ব্যাপার ফোনের সাথে থাকছে না কোন চার্জার। তাই চার্জার কিনতে হবে আলাদা ইউনিট হিসাবে।সাদা এবং কালো এই দুইটা রঙে এসেছে নাথিং ফোন ১

ভারতের বাজারে মডেল ভেরিয়ান্ট ভেদে দাম পড়ছে ৩৩ হাজার থেকে ৩৯ হাজার রুপি।

ইউরোপ মধ্যপ্রাচ্যে ইতিমধ্যেই নাথিং ফোন ওয়ানের বিক্রি শুরু হয়ে গেছে।বাংলাদেশ থেকে ফোনটি কিনতে হলে অপেক্ষা করতে হবে গ্রাহকদের আরো কিছুদিন।

What is your response?
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
+1
0
Leave a comment